আসসালামু আলাইকুম।আশা করি সবাই ভালো আছেন।আমিও ভালো আছি।

আজকে আমি আপনাদের জন্য Google এ পাওয়া সেরা ৫ টি  সেরা সাউথ মুভি নিয়ে আলোচনা করব ও তাদের ইউটিউব লিংক দিবো।



1.Kumbalangi Nights

Imdb : 8.6/10

Personal Rating : 9/10

যারা একশন/কমেডি/ থ্রিলার মুভি পছন্দ করেন তারা এসব মুভি থেকে দুরে থাকুন।কারণ মুভি নেই কোনো কমেডি নেই একশন শুধু আছে চার ভাইয়ের দুষ্টুমিষ্টি ঝগড়া। সাঝি এন্ড ববি তারা চার ভাই।সবচেয়ে ছোট যে সে হচ্ছে ম্যাথেও।ছোটবেলায়ই বাবাকে হারায়,কিন্তু মাকেও তারা পাশেও পায়নি।কারণ তিনি অভিমান করে চলে গিয়েছিলেন অনেক দুরে যেখান থেকে তিনি কিনা আর দ্বিতীয় বার বাসায় ফিরতে চান না। ববি সে খুবই দুষ্টু আর দেখতে সুদর্শন। স্কুল থাকাকালীন সে অনেক মেয়েরই ক্রাশ ছিলো তার মধ্যে একজন ছিলো যার নাম ছিলো বেবি।পরবর্তীতে বেবি কি ববিকে তার মনের কথাগুলো বলতে পারে নাকি সে ক্রাশ হিসেবেই থেকে যায় তা জানতে হলে অবশ্যই আপনাকে মুভিটা দেখতে হবে। সবমিলিয়ে পারফেক্ট ছিলো মুভিটা। হৃদয় ছুঁয়ে যাবে আপনার।কি বিশ্বাস হচ্ছেনা আমার হচ্ছিলোনা কিন্তু মুভিটা দেখার পর বিশ্বাস আরো দ্বিগুণ বেড়ে গেলো।তাইতো আপনাকে বলছি দেরি না করে মুভিটা দেখে নিন আশা করি আপনার সময় নষ্ট হবেনা।


2.Uyare

IMDB: 8.1/10

Personal:9/10

Cast: Parvathy, Tovino Thomas, Asif ali.

উয়ারে ২০১৯ এর বহুল প্রশংসিত একটি মুভি।মুভিটা এসিড দগ্ধ একটা মেয়ের স্বপ্ন পূরণের গল্প। প্রতিটা মানুষ স্বপ্ন নিয়েই বড় হয়। সেই স্বপ্নে প্রিয় মানুষের সাথে ঘর বাধার ও একসাথে স্বপ্ন বাস্তবায়নের ও ইচ্ছা থাকে। কিন্তু কিছু ইচ্ছা পূরণের ক্ষেত্রে সুন্দর চেহারা থাকা বাধ্যতামূলক। কিন্তু সেই চেহারা যখন নস্ট হয়ে যায়, স্বপ্ন ও অনেক দূরে সরে যায়। পাল্লাভির ছোটবেলা থেকেই ইচ্ছা থাকে পাইলট হবার। সব কিছু সঠিক ভাবেই চলছিল, যতক্ষণ না পর্যন্ত সে এসিড আট্যাক এর স্বীকার হয়। বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতা ও ব্যাক্তিগত সমস্যার ভিতর দিয়েও কিভাবে পাল্লাভি তার স্বপ্ন পূরণ করেন তা জানতে হলে মুভিটি দেখতে হবে। পার্বতী, এই নামটাই মুভিটি দেখার জন্য যথেষ্ট। দুর্দান্ত অভিনয় করেছেন।আসিফ আলির অভিনয় ও ছিল প্রশংসা করার মত। টভিনো বরাবরের মতই তার প্রতিভার সাক্ষর রেখেছেন। বিজিএম ও অনেক ভাল ছিল।




3.Premam

Genre: Romance, Drama

Imdb: 8.3/10

Personal:9.3/10

Cast: Nivin pauly, Madonna Sebastian, Anupama parameswaran, Sai pallavi

মালায়ালাম ভাষায় 'প্রেমাম' মানে ভালোবাসা। মানুষের জীবনে বিভিন্ন ধাপে প্রেম-ভালোবাসা আসে। এই সিনেমায় একজন ছেলের পর্যায়ক্রমিক ভালোবাসার দৃশ্য দেখানো হয়েছে। খুব সুন্দর সাদামাটা প্রেমের গল্পের ছবি। জর্জ ১২তে পড়ে। সে চার্চে ম্যারি নামে এক স্কুল পড়ুয়া মেয়েকে দেখে প্রেমে পড়ে। তার দুই বন্ধু কয়া আর শম্ভূ তাকে বিভিন্ন বুদ্ধি দিয়ে সাহায্য করে। জর্জ ম্যারিকে তার মনের কথা বলার অনেক চেষ্ঠা করে কিন্তু পারে না......কারণ তার ভয়ঙ্কর বাবা। তিনি তার মেয়েকে যে প্রেম নিবেদন করে তাকেই পেটায়। এই ধাপে তার প্রেম অপূর্ণই রয়ে যায়। পরবর্তীতে টগবগে সেই ছেলে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে ভর্তি হয়। জুনিয়রদের র‍্যাগ দিতে গিয়ে 'মালার' নামক শিক্ষিকার সাথে পরিচিত হয়। মালার কলেজের গেস্ট টিচার। প্রথম দেখায় প্রেমে পড়ে। তারা একে-অপরকে ভালোবাসে। হঠাৎ একদিন খবর আসে মালার এক্সিডেন্ট করে এবং স্মৃতিশক্তি হারিয়ে ফেলে। এই সম্পর্ক আর আগাতে পারেনি। পরবর্তীতে মালারের সাথে তার কাজিনের বিয়ে হয়। এবারও কি ব্যর্থ হতে যাচ্ছে এই প্রেমিক-হৃদয়...? রোমান্টিক জনরার মুভি লাভারদের জন্য মাস্টওয়াচ 'প্রেমাম।



4.Charlie

IMDb - 7.8/10

Personal: 10/10

Cast: Dulqeer Salman,Parvathy,Aparna Gopinath

চার্লি দেখেনি এমন কোনো সাউথ লাভার আছে বলে মনে হয় না।আমি ৫ম বারের মত দেখলাম। আসলে কিছু কিছু মুভি এমনি হয় আটকে রাখা যায় না কখনো কখনো।দুলকার সালমানের দেখা প্রথম মুভি ছিল এটা।ভ্রমন প্রিয় মেয়ে টেসা পেশায় গ্রাফিক আর্টিস্ট। বিয়ে থেকে বাচতে সে বান্ধবীর পরামর্শে পালিয়ে কেরালায় একটা বাসা ভাড়া নিয়ে লুকিয়ে থাকে। বাসাটা এলোমেলো, অপরিষ্কার আর অদ্ভুত সব জিনিসে ভরা। সে জানতে পারে সেখানে রহস্যময় ভবঘুরে এক মানুষ থাকতো, নাম ছিল চার্লি। ঘরে আবিস্কার করে অসম্পূর্ণ স্কেচবুক, সেখানে চার্লি এঁকে রেখেছিল নিউ ইয়ারে  ঘটা এক কাহিনী, এক  চোরের সাথে বন্ধুত্ব এবং তার সাথে চুরি করা।সেটা ছিল এক অসমাপ্ত গল্প। বাকি অসম্পূর্ণ কাহিনী জানার জন্য আগ্রহী টেসা বের হয়ে পরে  চার্লিকে খুঁজতে। সে দেখা পায় চার্লির পরিচিত অনেক মানুষকে, আরও কিছু দারুন রহস্য জানতে পারে। চার্লির  নির্দিষ্ট ঠিকানা নেই, নেই কোনো পরিচয় বা বাড়ি। সে সবার উপকার করার চেষ্টা করে, অন্যকে খুশি রাখতে চায়। টেসা একবারের জন্যও চার্লিকে দেখেনি, তবুও তাকে ভাল লেগে যায় তার। চার্লিকে খুঁজতে আরো মরিয়া হয়ে উঠে সে। শেষ পর্যন্ত কি সে চার্লির দেখা পেয়েও যায়।কিভাবে? দারুন উপস্থাপন দারুন গল্প মনে ছুয়ে যাওয়ার মত। হিন্দি ডাব নাই বাংলা সাব এ দেখা যাবে। আর ন্যাচার প্রেমি হলে দেখতে হবে Charlie মুভি।হিমুর যারা পড়েছেন তাদের কাছে চার্লির সাথে হিমুর সাথে কিছুটা মিল পেয়ে যাবেন।তবে অনেক অমিল রয়েছে।





5.Drishyam

Release : 19 December 2013

IMDb  : 8.3/10

Personal: 9.5/10

Google users like movie : 96%

Box office : 750 Million Indian Rupee

Genres : Thriller, Mystery & Crime

Cast : Mohanlal, Menna, Ansiba Hassan & Asha Sarath

জর্জ যিনি প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত পড়ালেখা করছেন, চলচ্চিত্র দেখতে বেশ পছন্দ করতেন, যিনি বিভিন্ন দেশের ভাষাও জানতেন,প্রেম করে বিয়ে করেছেন স্ত্রী ও দুই মেয়েকে নিয়ে সুখের সংসার,গ্ৰামের সবাই তাকে ভালোবাসতো সম্মান করতো,একদিন তাদের জীবনে নেমে আসে এক বিভিষিকাময়  রাত,২ আগস্টের আগের দিন জর্জের কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে এক আইজির ছেলে আপত্তিকর দৃশ্য ভিডিও ধারণ করে ব্ল্যাকমেল করতে থাকে আর ওই ছেলেটি বলে পরেরদিন ২ আগস্ট রাতে দেখা করতে,জর্জের বড় মেয়ে লুকিয়ে কাদা শুরু করে দেয়,এদিকে বৃষ্টির দিন ওই ছেলেটি ঠিকই আসে আর ওই মেয়ের সাথে পিছনের দরজায় এসে প্রবেশ করে,এইসময় জর্জের স্ত্রীও এখানে এসে যায়,তারপর জর্জের স্ত্রীকে সব কিছু খুলে বলে এই ছেলেটি, জর্জের স্ত্রী নিজের মেয়েকে বাঁচাতে ওই ছেলেকে অনেক রিকুয়েস্ট করতে থাকে,তারপর ওই ছেলেটি শর্ত দেয় জর্জের মেয়েকে বাদ তাঁর জর্জের স্ত্রীর কাছ থেকে যৌন সুখ নেওয়ার আবেদন করে , জর্জের মেয়ে পিছনে থেকে লাঠির আঘাতে তাকে মেরে ফেলে তারপর তারা লাশ লুকিয়ে কবর দিয়ে দেয়,এরপরের দিন ৩ আগস্ট সকালে জর্জ এসে সব ঘটনা শুনে শুরু হয় তাদের সংগ্ৰাম নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে। মুভিটার কাহিনী সত্যি অসাধারণ।মালায়লাম ইন্ডাস্ট্রির সুপারস্টার মোহনলালের অভিনয় আর কাহিনী চলচ্চিত্র কে প্রাণবন্ত করে তুলেছে,মোহনলালের এই মুভিটাই দেখেছি তার আর কোনো মুভি দেখি নাই।এই মুভিটা এতোটা জনপ্রিয়তা পায় ৪ বার রিমেক হয় ৪টি চলচ্চিত্র ৪টি ভাষায় প্রত্যেকটি মুভির রেটিং ৮ এর উপরে। এই মুভির সিকুয়েল Drishyam 2 এই বছর ২০২১ সালে মুক্তি পাওয়ার কথা আছে।সবশেষে বলবো আমার বলা সেই মুভি। 



তো এই ছিল আজকের মতো।সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন।আল্লাহ হাফেজ।


Post a Comment

Previous Post Next Post