What to do if Chicken Pox Attacks জেনে নিন বসন্ত রোগের প্রকারভেদ,কারণ,লক্ষণ ও করণীয়।

আসসালামু আলাইকুম। আশা করি সবাই ভালো আছেন। আমিও ভালো আছি। 

আজকে আমি আপনাদের কাছে একটি মারাত্মক বসন্ত রোগ কয় ধরনের? কেন হয়? এ রোগের লক্ষন কি? এ রোগ হলে কি কি করনীয় সেটা আপনাদের সাথে শেয়ার করব।




বসন্ত রোগ দুই ধরনের। গুটি বসন্ত ও জলবসন্ত ( চিকেন পক্স)।



বসন্ত রোগ কেন হয়?

অনেকে বলে থাকে বসন্ত রোগ বসন্ত কালে হয়।সাধারণত বসন্ত রোগ জানুয়ারি থেকে জুন মাসে হয়ে থাকে। এ রোগ বছরের যে কোন সময় ই হতে পারে।আবহাওয়া পরিবর্তনের সাথে সাথে এ রোগের প্রকোপ দেখা যায় বেশি। এটি একটি ছোঁয়াচে রোগ। আক্রান্ত ব্যাক্তির সংস্পর্শে এলে এ রোগ অপর ব্যাক্তির উপর ও এ রোগের ভাইরাস আক্রমণ করে



এ রোগ যেকোনো বয়সের মানুষের ই হতে পারে। শিশু, প্রাপ্ত বয়স্ক ও বয়স্ক যেকোনো বয়সের মানুষের ই হতে পারে। এ রোগ অতিদ্রুত একজনের শরীর হতে সংস্পর্শে থাকা ব্যাক্তিদের শরীরে সংক্রমিত হয়।



বসন্ত রোগের লক্ষন

জ্বর, সর্দি- কাশি হয়। শরীরে গুটি ওঠে। জল বসন্ত (চিকেন পক্স) হলে গুটির ভিতরে পানি থাকে।এই পানি সুস্থ্য ব্যাক্তির সংস্পর্শে এলে। ওই সুস্থ্য ব্যাক্তি ও আক্রান্ত হতে পারে।
গুটি বসন্ত হলে গুটির ভিতর পুজ থাকে।গায়ে তীব্র ব্যাথা অনুভব হয়।



বসন্ত রোগ হলে করনীয়

বর্তমান সময়ে বসন্ত রোগের প্রভাব আগের মতো নেই, বেরিয়েছে অনেক আধুনিক চিকিৎসা। শিশু, বয়স্ক ও প্রাপ্ত বয়স্ক দের জন্য টিকা দিলে এ রোগের আশঙ্কা থাকে না। এ রোগে আক্রান্ত হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। যথা সম্ভব আক্রান্ত ব্যাক্তির থেকে দুরে থাকতে হবে।আক্রান্ত ব্যাক্তিকে কম মশলা যুক্ত খাবার খেতে হবে। প্রাটিন যুক্ত খাবার খেতে হবে বেশি করে। আক্রান্ত ব্যাক্তি নিয়মিত গোসল করতে পারবে। এ রোগে আক্রান্ত হলে ১-১৪ দিনের মধ্যেই ব্যাক্তি সুস্থ্য হয়ে যায়।



আমাদের নতুন সাইটের ভালো একটা পোস্ট দেখে নিনঃ  Easy ways to burning fat faster 2021


আরো নতুন নতুন টিপস পেতে সাথেই থাকুন। 

তো আজকে এই পর্যন্তই।সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন।আল্লাহ হাফেজ।

Post a Comment

0 Comments