আসসালামু আলাইকুম।আশা করি সবাই ভালো আছেন।আমিও ভালো আছি।

আজকে আমি আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম সদ্য মুক্তি পাওয়া বাংলাদেশী মুভি "বরফ কলের গল্প" এর হালকা রিভিউ ও ডাউনলোড লিংক। তো চলুন শুরু করা যাক।




মাত্রই দেখে শেষ করলাম সদ্য মুক্তি পাওয়া 'ভয়ঙ্কর' সুন্দর থ্রিলারধর্মী ওয়েব সিরিজ 'বরফ কলের গল্প’।সিরিজটির পরিচালক শহীদ উন নবী এবং প্রযোজনা ও সম্প্রচার করেছে ওয়েব অ্যাপ,বিঞ্জ (Binge)।

পরিচালক-প্রযোজকের ভাষায় প্রতিটি চরিত্র কাল্পনিক বা কাকতালীয় বলা হলেও সিরিজটি মূলত ১৯৮৪-১৯৯৯ সালে খুলনায় ত্রাস সৃষ্টিকারী ভয়ঙ্কর খুনি মাফিয়া ডন এরশাদ শিকদারের কুখ্যাত জীবনের নানা ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত। 


সিরিজটির মূল 'নওশাদ' চরিত্রে অভিনয় করেছেন আনিসুর রহমান মিলন। সত্যি বলতে পুরো সিরিজটির সবচেয়ে মজবুত ও উপভোগ্য দিক লেগেছে এই 'নওশাদ' চরিত্রটি। পুরোটা সিরিজ জুড়ে আনিসুর রহমান মিলনের (নওশাদ) চোখ-মুখের অভিব্যক্তি ও অভিনয় নৈপুণ্য বিশেষভাবে চোখে লেগে থাকবে।চরিত্রের সাথে মানানসই ছোট ছোট ছাঁটা চুল,কামানো দাঁড়ি, মুখের কাঠিণ্যভাব,ভ্রু কুঁচকানো চোখ মিলনকে প্রকৃত খুনি অপরাধী হিসেবে উপস্থাপন করেছে।


পাশাপাশি, নির্যাতন-নিপীড়ন,খুন,ধর্ষণের ক্ষেত্রে যতটাই ভয়াবহ দেখা গেছে শেষ দৃশ্যে ততটাই ভয়ার্ত, অসহায় ও করুণ আর্তি ফুটে উঠেছে তাঁর চোখে-মুখে। খুলনার আঞ্চলিক ভাষা ব্যবহার ও ডায়ালগ ডেলিভারিতে তাঁকে যথেষ্ট সাবলীল মনে হয়েছে। আনিসুর রহমান মিলনকে তাই প্রথাগত সিনেমা ও নাটকের সাপেক্ষে একেবারে নতুনভাবে আবিষ্কার করবেন দর্শক-একথা বলাই যায়।


ছয় পর্বে সমাপ্ত ওয়েব সিরিজটির প্রতিটি পর্ব ২০-২২ মিনিট ব্যাপী। ওয়েব 'অ্যাপ' সিরিজ বলেই হয়ত সংক্ষিপ্ত পরিসরে তাড়াতাড়ি শেষ করার একটা প্রচেষ্টা দেখা গেছে।অনেক নৃশংস কর্মকাণ্ড ও নোংরা জগতের হোতা 'নওশাদের' চরিত্রটি উল্লেখযোগ্যভাবে উপস্থাপন করা হলেও কাহিনী গঠনের সময়কালের দিকটায় সিরিজটা একটু পিছিয়ে থাকবে। 


শেষের দিকে একটু তাড়াহুড়ো করে শেষ করা হয়েছে বলে মনে হল। চিত্রনাট্য বিবেচনা করলে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে দর্শক সিরিজটিকে নওশাদ তথা এরশাদ শিকদারের জীবনী হিসেবেই নেবেন। 'বৈচিত্র্যময় ও ঘটনাবহুল' এমন একটি জীবনপ্রবাহ যথাযথ ফুটিয়ে তুলতে আরও একটু সময় নিয়ে দর্শককে চরিত্র ও ঘটনার সাথে 'একাত্ম' হয়ে যাবার সুযোগ করে দেওয়া যেত।


'নওশাদ' চরিত্রে আনিসুর রহমান মিলন ছাড়াও পুলিশ কমিশনার চরিত্রে শহীদুল আলম সাচ্চু, নওশাদের প্রধান সহযোগী চরিত্রে 'হীরা' এবং মূল নারী চরিত্রে নিশাত প্রিয়মের অভিনয়ের কথা উল্লেখ করা যায়। অনুসন্ধানী সাংবাদিক চরিত্রে কাজী নওশাবা আহমেদের অভিনয় ভালো লাগেনি, মেকি লেগেছে।এছাড়া অন্যান্য চরিত্রে সুবর্ণা মজুমদার, লিজা খানম, মুকুল সিরাজ, আনিকা ,অদিতি নীহারিকা, নির্জন মমিন প্রমূখ শিল্পীরা অভিনয় করেছেন।


চিত্রনাট্যে স্বভাবতই গালিগালাজ, রক্তপাত, নৃশংসতা খুনখারাবির দৃশ্য আছে,তবে জায়গাভেদে দর্শক চোখে সহনশীলতা আনার জন্য সেগুলো সীমাবদ্ধ (সেন্সরড) করা হয়েছে।তো দর্শক,গা শিউরে উঠা মোট প্রায় দুই ঘণ্টার (ছয় পর্বের) সিরিজটি দেখতে পারেন ওটিটি প্ল্যাটফর্মের একটা ব্যতিক্রমী দেশি কাজ হিসেবে। সাম্প্রতিককালের দেশি ওয়েব সিরিজ 'তাকদীর'-এর পর এটা ভালোলাগার তালিকায় থাকবে।


ব্যক্তিগত রেটিং : ৭/১০



এবার ডাউনলোড করার পালা।

আমি নিচে ডাউনলোড লিংক দিয়ে দিচ্ছি।আপনারা গুগল ড্রাইভ থেকে ডাউনলোড করে নিন।


720p Link: Download From Here  Server 2    server 3

480p Link: Download From Here   Server 2   Server 3


তো আজকে এই পর্যন্তই।

সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন।আল্লাহ হাফেজ।

2 Comments

Post a Comment

Previous Post Next Post